Categories
My text

সূরা মারইয়ম ৪১-৪৭

১৯:৪১
ওয়াযকুর = আর যিকির/ আলোচনা করো। ফিল কিতাবি = এই কিতাবে যা বলা হয়েছে। ইবরাহীমা = ইবরাহীম সম্পর্কে। ইন্নাহু = নিশ্চয় সে। কানা = ছিলো। সিদ্দীক্বান নাবীয়্যান = সিদ্দিক/ সত্যবাদী ও নবী।

আর যিকির/ আলোচনা করো এই কিতাবে যা বলা হয়েছে ইবরাহীম সম্পর্কে। নিশ্চয় সে ছিলো সিদ্দিক/ সত্যবাদী ও নবী।

১৯:৪২
ইয = যখন। ক্বলা = সে বলেছে। লিআবীহি = তার পিতাকে। ইয়া আবাতি = হে আমার আব্বা। লিমা = কেন। তা’বুদু = আপনি উহার ইবাদাত/ দাসত্ব করেন। মা = যা। লা ইয়াছমাউ = শুনে না। ওয়া = আর। লা ইউবসিরু = দেখে না। ওয়া = আর। লা ইউগনী = কাজে আসে না। আনকা = আপনার ব্যাপারে। শাইয়ান = কিছুমাত্রও।

যখন সে বলেছে তার পিতাকে, ‘হে আমার আব্বা, কেন আপনি উহার ইবাদাত/ দাসত্ব করেন যা শুনে না আর দেখে না, আর কাজে আসে না আপনার ব্যাপারে কিছুমাত্রও?

১৯:৪৩
ইয়া আবাতী = হে আমার আব্বা। ইন্নী ক্বাদ জাআনী = নিশ্চয় আমার কাছে এসেছে। মিনাল ইলমি = এমন কিছু ইলম/ জ্ঞান। মা লাম ইয়া’তিকা = যা আপনার কাছে আসেনি। ফাত্তাবি’নী = সুতরাং আপনি আমার ইত্তেবা/ অনুসরণ করুন। আহদিকা = আমি আপনাকে হিদায়াত/ পথনির্দেশ করবো। সিরাতান সাভিয়্যান = সরল সঠিক পথ।

হে আমার আব্বা, নিশ্চয় আমার কাছে এসেছে এমন কিছু ইলম/ জ্ঞান, যা আপনার কাছে আসেনি। সুতরাং আপনি আমার ইত্তেবা/ অনুসরণ করুন। আমি আপনাকে হিদায়াত/ পথনির্দেশ করবো সরল সঠিক পথ।

১৯:৪৪
ইয়া আবাতী = হে আমার আব্বা। লা তা’বুদিশ শায়তানা = শয়তানের ইবাদাত/ দাসত্ব করবেন না। ইন্নাশ শায়তানা = নিশ্চয় শয়তান। কানা = হলো। লিররহমানি = রহমানের/ দয়াময়ের প্রতি। আসিয়্যান = অবাধ্য।

হে আমার আব্বা, শয়তানের ইবাদাত/ দাসত্ব করবেন না। নিশ্চয় শয়তান হলো রহমানের/ দয়াময়ের প্রতি অবাধ্য।

১৯:৪৫
ইয়া আবাতী = হে আমার আব্বা। ইন্নী = নিশ্চয় আমি। আখাফু = ভয় করি। আইঁ ইয়ামাছছাকা = যে, আপনাকে স্পর্শ করবে। আযাবুম মিনার রহমানি = রহমানের/ দয়াময়ের আযাব/ শাস্তি। ফাতাকূনা = ফলত: আপনি হয়ে থাকবেন। লিশ শয়তানি = শয়তানের জন্য। ওয়ালিয়্যান = ওলি/ বন্ধু।

হে আমার আব্বা, ‘নিশ্চয় আমি ভয় করি যে, আপনাকে স্পর্শ করবে রহমানের/ দয়াময়ের আযাব/ শাস্তি। ফলত: আপনি হয়ে থাকবেন শয়তানের জন্য ওলি/ বন্ধু’।

১৯:৪৬
ক্বলা = সে ( ইবরাহীমের পিতা) বলেছে। আরাগিবুন আনতা = তুমি কি বিমুখ হয়ে আছো। আন আলিহাতী = আমার ইলাহগুলো থেকে। ইয়া ইবরাহীমু = হে ইবরাহীম। লাইল্লাম তানতাহি = যদি তুমি বিরত না হও। লাআরজুমান্নাকা = তাহলে, অবশ্যই আমি তোমাকে রজম/ পাথর নিক্ষেপে হত্যা করবো। ওয়া = আর। হুজুরনী = (তা থেকে বাঁচতে হলে) তুমি আমাকে ছেড়ে চলে যাও। মালিয়্যান = চিরতরে।

সে (ইবরাহীমের পিতা) বলেছে, ‘তুমি কি বিমুখ হয়ে আছো আমার ইলাহগুলো থেকে? হে ইবরাহীম। যদি তুমি বিরত না হও, তাহলে অবশ্যই আমি তোমাকে রজম/ পাথর নিক্ষেপে হত্যা করবো। আর (তা থেকে বাঁচতে হলে) তুমি আমাকে ছেড়ে চলে যাও চিরতরে’।

১৯:৪৭
ক্বলা = সে (ইবরাহীম) বলেছে। সালামুন আলাইকা = ‘সালামুন আলাইকা’/ আপনার উপর শান্তি। ছাআছতাগফিরুলাকা = শীঘ্রই আমি আপনার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করবো। রব্বী = আমার রবের কাছে। ইন্নাহু = নিশ্চয় তিনি। কানা = হলেন। বী = আমার প্রতি। হাফিয়্যান = অনুগ্রহশীল।

সে ( ইবরাহীম) বলেছে, ‘সালামুন আলাইকা’/ আপনার উপর শান্তি। শীঘ্রই আমি আপনার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করবো আমার রবের কাছে। নিশ্চয় তিনি হলেন আমার প্রতি অনুগ্রহশীল।

By Ekramul hoq

I am A.K.M Ekramul hoq MA.LLB. Rtd Bank Manager & PO of Agrani Bank Ltd. I am interested writing and reading. Also innovator of history of Islam. Lives in Bangladesh, District Jamalpur.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights